প্রিয় বরিশাল - খবর এখন স্মার্ট ফোনে প্রিয় বরিশাল - খবর এখন স্মার্ট ফোনে কাঁধে সিলিন্ডার বেঁধে করোনা আক্রান্ত মাকে মোটরসাইকেলে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া ছেলেকে সংবর্ধনা | প্রিয় বরিশাল কাঁধে সিলিন্ডার বেঁধে করোনা আক্রান্ত মাকে মোটরসাইকেলে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া ছেলেকে সংবর্ধনা | প্রিয় বরিশাল
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০২:৩৪ অপরাহ্ন
প্রিয় বরিশাল :
খবর এখন স্মার্ট ফোনে...

কাঁধে সিলিন্ডার বেঁধে করোনা আক্রান্ত মাকে মোটরসাইকেলে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া ছেলেকে সংবর্ধনা

রিপোর্টারের নাম
  • প্রকাশিতঃ শনিবার, ২২ মে, ২০২১

প্রিয় ডেস্ক॥ ঝালকাঠির নলছিটিতে কাঁধে সিলিন্ডার বেঁধে করোনা আক্রান্ত মাকে মোটরসাইকেলে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া সেই সন্তান জিয়াউল হাসান টিটুকে সংবর্ধনা দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

শনিবার (২২ মে) বেলা ১১টায় নলছিটি উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে জিয়াউল হাসান টিটিুর হাতে সম্মাননা স্বারক তুলে দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রুম্পা সিকদার।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নলছিটি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সিদ্দিকুর রহমান, টিটুর মা করোনা বিজয়ী রেহানা পারভীন, ছোটো ভাই রাকিবুল হাসান ইভান, ঝালকাঠি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি আল-আমিন তালুকদার, ঝালকাঠি প্রেসক্লাবের সহ-সম্পাদক কেএম সবুজ, সাংবাদিক অলোক সাহা, সাংবাদিক ইসমাঈল হোসাঈনসহ স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুম্পা সিকদার বলেন, মাকে এবং তাঁর সন্তানকে নিয়ে করা অনুষ্ঠানটি আমার আট বছরের চাকরি জীবনের সেরা আয়োজন। এই আনন্দটুকু সবার মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে। টিটু ভাইয়ের মায়ের সম্পূর্ণ সুস্থতা কামনা করি।

নলছিটি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান বলেন, টিটু তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত নিয়ে যে উপায়ে মাকে নিয়ে হাসপাতালে পৌঁছেছে সেটি একটি বিরল ঘটনা। আমরা টিটুকে সংবর্ধিত করতে পেরে আনন্দিত।

টিটু’র মা রেহানা পারভীন অনুভূতিব্যক্ত করে বলেন, আমি শিক্ষকতা জীবনে শিক্ষার্থীদের যা উপদেশ দিতাম সেই সেবাগুলোই এখন সন্তানদের কাছ থেকে পাচ্ছি। এছাড়া উপজেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

টিটু বলেন, সন্তান মায়ের জন্য করবে এটাই স্বাভাবিক। এতে সংবর্ধিত হওয়ার কিছু নেই। তাঁরপরও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক স্যারসহ সরকারি উর্ধতন কর্মকর্তারা আমাকে ফোন দিয়ে উৎসাহ দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, জিয়াউল হাসান টিটু গত ১৭ এপ্রিল শরীরের সঙ্গে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে মোটরসাইকেলে করে করোনা আক্রান্ত মা রেহানা পারভীনকে অক্সিজেন দিয়ে ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার বাড়ি থেকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলেন। সেদিন বিকেলে বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়ক থেকে যাওয়ার সময় বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের সার্জেন্ট তৌহিদ টুটুলের তোলা মা-ছেলের হাসাপাতালে যাওয়ার ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছিল। এরপর অনেক গণমাধ্যমে খবরটি প্রচারিত হয়।

রেহানা পারভীন ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার সূর্যপাশা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আব্দুল হাকিম মোল্লার স্ত্রী। রেহানা নলছিটি বন্দর প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক। তাঁর সন্তান জিয়াউল হাসান টিটু কৃষি ব্যাংক ঝালকাঠি সদর শাখার সিনিয়র অফিসার। বড় ছেলে পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মেহেদী হাসান মিঠু। ছোট ছেলে রাকিবুল হাসান ইভান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি বিভাগে পড়ছেন।

এই ক্যাটাগরির আর নিউজ
© All rights reserved © priyobarishal.com-2018-2021
themesba-lates1749691102