প্রিয় বরিশাল - খবর এখন স্মার্ট ফোনে প্রিয় বরিশাল - খবর এখন স্মার্ট ফোনে বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ | প্রিয় বরিশাল বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ | প্রিয় বরিশাল
শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০৬:৫০ অপরাহ্ন
প্রিয় বরিশাল :
খবর এখন স্মার্ট ফোনে...

বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১
বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ
0 Shares

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেম। অতঃপর শারীরিক সর্ম্পক। এতে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে ওষুধ খাইয়ে গর্ভপাতের চেষ্টা, তাতে কাজ না হওয়ায় হাসপাতালে নিয়ে গর্ভপাত করানো হয়- বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগে মামলার আবেদন করেছেন এক তরুণী।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাতে মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানায় লিখিত অভিযোগ দেন ওই তরুণী। ওই তরুণী অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা জসিম উদ্দিনের আত্মীয়।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতির সঙ্গে ৮ বছর ধরে সর্ম্পক চলে আসছিল ওই তরুণীর। সম্পর্কের বিভিন্ন সময় শারীরিক সম্পর্ক করার প্রস্তাব দেয়। ওই তরুণী প্রস্তাবে রাজি না হলে জসিম উদ্দিন বিয়ের প্রলোভন দেখায়। এ সময় জসিম উদ্দিন বিভিন্ন ধরনের উপহার সামগ্রী দিয়ে আকৃষ্ট ও বিশ্বাস অর্জন করতে চায়। সেই সূত্র ধরে ২০১৯ সালের ১০ সেপ্টেম্বর ওই তরুণীর বাসায় বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণ করেন। এতে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন তরুণী।

জসিম উদ্দিন এই খবর শুনে গর্ভপাত করার প্রস্তাব দেন। কিন্তু রাজি না হলে সমাজে মুখ দেখানোর উপায় থাকবে না বলে বোঝায়। শেষে গর্ভপাত করার জন্য পিল এনে দেয় জসিম। এতেও কাজ না হলে বরিশাল জেনারেল হাসপাতালে ডা. তানিয়া আফরোজের মাধ্যমে গর্ভপাত করান।

পরবর্তীতে ঢাকা, বরিশালের বিভিন্ন হোটেল ও রেস্তোরাঁয় দেখা করার সময় বিয়ের প্রলোভন দিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। সর্বশেষ ২০২১ সালের ৫ মার্চ রাত সাড়ে ১১টায় তরুণীর বাসায় গিয়ে সারারাত এক সঙ্গে থাকেন জসিম উদ্দিন। এ সময় তরুণীকে তিনবার ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন।

স্থানীয়ভাবে জানা গেছে, ওই তরুণী এপ্রিল মাসের শুরুর দিকে নগরীর সাগরদিতে জসিম উদ্দিনের বাসায় গিয়ে বিয়ের দাবিতে হট্টগোল করেন। এর কিছুদিন পরে জানতে পারেন, জসিম উদ্দিন তাকে বাদ দিয়ে অন্য এক মেয়ের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন বলেন, সেই মেয়েকে আমি চিনি। তিনি আমার আত্মীয় হন। তার সঙ্গে প্রেমের সর্ম্পক ছিল না। ষড়যন্ত্র করে আমার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

এয়ারপোর্ট থানার ওসি কমলেশ চন্দ্র হালদার জানান, তরুণীর অভিযোগটি ধর্ষণের। আমরা প্রাথমিক তদন্ত করছি। কিছু ‘ডকুমেন্টস’ নিচ্ছি। এরপর আমরা মামলা আকারে গ্রহণ করবো।

এই ক্যাটাগরির আর নিউজ
© All rights reserved © priyobarishal.com-2018-2021
themesba-lates1749691102